সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম – (ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় 2021)

কিভাবে মোবাইল চার্জ দিতে হয় – হ্যালো বন্ধুরা আপনারা কেমন আছেন আশা করি আপনারা সবাই ভাল আছেন বন্ধুরা আজকের এই পোস্টের মধ্যে আমরা কথা বলবো সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম তো বন্ধুরা আমাদের মধ্যে ৮০% স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা একটি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস ব্যবহার করি এবং এই এন্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহারকারীদের মধ্যে ৭০% মানুষের মোবাইলের ব্যাটারি কেবল মাত্র এক বছরের ভিতরেই নষ্ট হয়ে যায়

সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম - (ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় 2021)

তাই মোবাইলের ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় জানার জন্য প্রথমে আপনাদের সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম গুলি বিস্তারিতভাবে জেনে নিতে হবে

কারণ আপনাদের স্মার্টফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার জন্য আপনারা আপনার মোবাইল ফোনটি কিভাবে চার্জ করছেন সেই বিষয় নিয়ে বিশেষভাবে আপনাদের খেয়াল রাখতে হবে

কেননা যদি আপনারা সঠিকভাবে আপনার মোবাইল চার্জ না করেন তাহলে আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারিতে অধিক বেশি চাপ পড়ে

যার ফলে আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারি খুব তাড়াতাড়ি খারাপ হয়ে যায় এটাই স্বাভাবিক

মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম না জেনেই যদি আপনারা বেঠিক ভাবে আপনাদের স্মার্টফোনগুলোতে চার্জ দেন তাহলে হঠাৎ মোবাইলের চার্জ কমে যাওয়া মোবাইলের ব্যাটারি ফুলে যাওয়া এছাড়া নিজে থেকে চার্জ শেষ হয়ে যাওয়া এবং আরো অন্যান্য সাংঘাতিক ব্যাটারি সমস্যা দেখা দিতে পারে

তাই একটি স্মার্টফোনের ব্যাটারি অনেক বেশি সময়ের জন্য ভালো রাখার জন্য আপনাদের মোবাইলটিকে সঠিকভাবে চার্জ দিতে হবে এর জন্য আপনাদের মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে আপনাদের বিস্তারিত জেনে রাখতে হবে

এছাড়াও একটি মোবাইল চার্জ দেওয়ার সময় আমরা বিভিন্ন ধরনের ভুল কাজ করে থাকি যেগুলো আমাদের দ্রুত বন্ধ করতে হবে

সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম

যখন আমরা নতুন কোন স্মার্টফোন কিনি তখন সেই স্মার্টফোনটি নতুন অবস্থায় থাকাকালীন আমরা তার অনেক যত্ন নেই কিন্তু কিছুদিন পুরনো হলে ওই স্মার্টফোনটির যত্ন করাটা আমরা প্রয়োজন অনুভব করিনা

এর ফলে সময়ের সাথে সাথে খুব অল্পসময়ের মধ্যেই আমাদের মোবাইল ও মোবাইলের ব্যাটারির অবস্থা খুবই খারাপ হয়ে যায়

তাই যদি আপনি আপনার মোবাইলের ব্যাটারি ক্ষমতা চিরকাল ভালোভাবে বজায় রাখতে চান এবং যদি আপনার স্মার্ট ফোনের ব্যাটারির সাথে জড়িত কোন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন না হতে চান তাহলে কিভাবে সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ করতে হয় এই বিষয়ে বিস্তারিত ভাবে জেনে নিন

সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়া টা মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার একমাত্র উপায়

সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার ৭ টি পদ্ধতি

স্মার্টফোন চার্জ দেওয়ার কিছু নিয়ম সম্পর্কে নিচে আমি আপনাদের বলে দিচ্ছি এবং সেই সাথে মোবাইল চার্জ দেওয়ার সময় কোন কোন জিনিসগুলো আপনারা কখনোই করবেন না সেই সম্পর্কেও আমি বলব

১. আপনি মোবাইল কখন চার্জ দিবেন?

একটি মোবাইল বা স্মার্টফোন চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম তখনই হয় যখন কোন স্মার্টফোনের ব্যাটারি ৫০% থেকে কম পরিমাণে চান্স থাকে

সর্বদা মোবাইলে ৫০% থেকে ৯০% এর ভিতরে চার্জ এর পরিমাণ বজায় রাখাটা অনেকাংশে ভালো

তাই যখনই আপনাদের স্মার্টফোনের চার্জ এর পরিমাণ ৫০ শতাংশ থেকে কমে যাবে তখনই আপনার মোবাইলে চার্জ দিতে হবে

এছাড়াও একটি কথা সর্বদা মনে রাখবেন ৯০% থেকে ৯৫% এর বেশি চার্জ কখনোই দিবেন না

হ্যাঁ ৯০% ব্যাটারি চার্জ হয়ে যাওয়ার পর মনে করে আপনার মোবাইলের চার্জারটি খুলে দেবেন

কখন মোবাইলে চার্জ দিবেন এই বিষয়টি খেয়াল রেখে যদি আপনারা সঠিক ভাবে আপনার মোবাইলে চার্জ দেন তাহলে আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারির স্বাস্থ্য অনেক ভালো থাকবে

২. মোবাইলের চার্জ এর পরিমাণ ২০% থেকে কম হতে দেবেন না

বন্ধুরা আমি জানি PUBG গেম খেলা, ইউটিউবে ভিডিও দেখা, বিভিন্ন ওয়েবসাইটে ভিজিট করা এবং আরো বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে করতে আপনাদের মোবাইলে চার্জ দেওয়ার কথাটা মনে থাকে না

যদি তাই হয়ে থাকে তাহলে যখন হঠাৎ করে আপনাদের মোবাইলে “low battery signal” দেখানো হয় তখন তার অর্থ হলো আপনার মোবাইলের ব্যাটারিতে ২০% এর নিচে চার্জ রয়েছে

কিন্তু আমরা আমাদের মোবাইলে গেম খেলতে বা ভিডিও দেখতে এতটাই ব্যস্ত থাকি যে আমাদের মোবাইলের চার্জ ২০% এর থেকে আরো অনেক পরিমাণে কমে যায়

এইভাবে ৫০% মানুষেরা তাদের নিজেদের মোবাইলের ব্যাটারির কার্যক্ষমতা দিনের-পর-দিন নষ্ট করতে থাকে

একটি কথা অবশ্যই মনে রাখবেন যখন আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারির চার্জ ২০% থেকে কমে যায় তখন সে ক্ষেত্রে আপনার মোবাইলের ব্যাটারি টি অনেক বেশি কর্মক্ষমতাহীন হয়ে পড়ে

তাই যখন আপনারা দিনের পর দিন ২০% থেকে কম চার্জ থাকা অবস্থায় ভারি ভারি গেম্বা অ্যাপ্লিকেশন আপনাদের মোবাইলে ব্যবহার করেন তখন নিঃসন্দেহেই আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারির কর্মক্ষমতা অনেক গুণ কমে যায়

তাই যদি আপনারা অনেক বেশি সময়ের জন্য আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারি ভালো রাখতে চান তাহলে সর্বপ্রথম উপায় এটাই যে আপনাদের মোবাইল ফোনে থাকা চার্জের পরিমাণ ২০% থেকে কম হতে কখনোই দেবেন না

এছাড়াও যদি আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারি তে ২০% থেকে কম পরিমাণে চার্জ থাকে তখন সেই অবস্থায় আপনারা মোবাইল ব্যবহার করবেন না

৩. আপনি কি সম্পূর্ণ ১০০% ব্যাটারি চার্জ করবেন?

না, তবে যদি দিয়ে থাকেন তাহলে সব সময় ১০০% চার্জ দেবেন না

বিভিন্ন মোবাইল এক্সপার্টরা বলেছেন যে যেকোনো স্মার্টফোনে সম্পূর্ণ ১০০% চার্জ না দিয়ে ৯০ থেকে ৯৫% অব্দি চার্জ দিলে মোবাইল এর ব্যাটারির স্বাস্থ্য ভালো থাকে

তবে মাসে যদি একবার সম্পূর্ণ 0% থেকে ১০০% পর্যন্ত ফুল চার্জ দেওয়ার প্রক্রিয়া টি সম্পূর্ণ করা হয় তাহলে সেই ক্ষেত্রে  ব্যাটারির জন্য অনেক বেশি ভালো বলে প্রমাণিত হয়েছে

এই প্রক্রিয়ার সাহায্যে “battery recalibrate” হবে এবং এর ফলে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম আবার আপনার মোবাইলের সঠিক ব্যাটারি লেভেল দেখাতে সক্ষম হবে

তবে শুধুমাত্র মাসে এক থেকে দু’বার সম্পূর্ণ 0% থেকে ১০০% পর্যন্ত চার্জ দেবেন

এর বেশি দেবেন না

৪. মোবাইল চার্জে দেওয়া কালিন ব্যবহার করবেন না

যখন একটি স্মার্ট ফোন চার্জে বসানো হয় তখন চার্জে দেওয়া কালিন আপনারা সেই স্মার্টফোনটি ব্যবহার না করার পরামর্শই আমি আপনাদের দেব

অনেক ক্ষেত্রে দেখা গেছে যে স্মার্টফোন চার্জে দিয়ে গেম খেলা বা মোবাইল ফোন চার্জে দিয়ে অন্যান্য কাজ করার সময় অনেক ক্ষেত্রে মোবাইলের ব্যাটারি তে বিস্ফোরণ হয়ে যায়

আমার কোন ধরনের উদ্দেশ্য নেই আপনাদের ভয় দেখানো

তবে আপনারা ইন্টারনেটে এই ধরনের বিভিন্ন মোবাইল বিস্ফোরণের ঘটনা দেখতে বা শুনতে পেয়ে যাবেন

আসলে যখন মোবাইল চার্জে দেওয়া হয় তখন চার্জে থাকাকালীন অবস্থায় ওই মোবাইলের ডিসপ্লে, প্রসেসর এবং অন্যান্য অংশ তে ব্যাটারি থেকে পাওয়ার নির্গত হতে থাকে

এর ফলে ব্যাটারির চার্জ এর বর্তমান ব্যবহার এবং চার্জারে সরবরাহ করা চার্জের পরিবারের মধ্যে প্রতিযোগিতা সৃষ্টি হয়ে যায়

এর ফলে মোবাইলের ব্যাটারি সাংঘাতিক বেশি পরিমাণে গরম হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে হয়তো আপনারা যখন মোবাইলে চার্জ দিয়ে গেম খেলেন বা ভিডিও দেখেন তখন আপনারা দেখে থাকবেন আপনাদের মোবাইলটি অনেক পরিমানে গরম হচ্ছে

এবং এই ব্যাটারি ওভারহিটিং এর কারণে আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারি অনেক কম সময়ের মধ্যেই খারাপ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে

ব্যাটারি চার্জ না হওয়া, ব্যাটারি খারাপ হয়ে যাওয়া ব্যাটারি অনেক আস্তে আস্তে চার্জ হওয়া এই সমস্ত ধরনের ব্যাটারির সাথে জড়িত সমস্যাগুলি ব্যাটারি ওভারহিটিং এর জন্য দেখা যায়

এছাড়াও ব্যাটারি ওভারহিটিং এর কারনে মোবাইলে বিস্ফোরণ হওয়ার কথাটা সম্পূর্ণ মিথ্যে নয়

এই কারণেই মোবাইলে চার্জ দেওয়ার নিয়ম গুলির মধ্যে চার্জ দেওয়ার সময় মোবাইল ব্যবহার না করার এই নিয়মটি অনেক বেশি প্রধান

৫. ব্যাটারি অপটিমাইজেশন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করুন

আমাদের এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে অধিকাংশ সময়ই কোন না কোন এপ্লিকেশন কাজ করতেই থাকে

এছাড়াও বিভিন্ন ব্যাকগ্রাউন্ড ফাংশন রয়েছে যেগুলোর আমাদের কোনো প্রয়োজন নেই কিন্তু সেই ফাংশনগুলো মোবাইলের চার্জ ব্যবহার করতেই থাকে

তাই বিভিন্ন ধরনের ভালো এন্ড্রয়েড মোবাইল ব্যাটারি অপটিমাইজেশন অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে যেগুলো ব্যবহার করে আপনারা আপনার মোবাইলের ব্যাকগ্রাউন্ডে ব্যবহার হওয়া চার্জের পরিমাণ কমিয়ে দিতে পারবেন

এছাড়াও যদি আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারি গরম হয়ে যায় তাহলে সেই ব্যাটারি ঠান্ডা করতে এই ধরনের অ্যাপ্লিকেশনগুলো অনেক বেশি সাহায্য করে

আপনারা আপনাদের মোবাইল এর ব্যাটারির স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য নিচে দেওয়া ব্যাটারি অপটিমাইজেশন অ্যাপ্লিকেশনগুলো ব্যবহার করে দেখতে পারেন

মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখার জন্য এই ধরনের অ্যাপ্লিকেশন গুলো ব্যবহার করাটা অনেক বেশি লাভজনক প্রমাণিত হয়েছে

সম্পূর্ণ রাতের জন্য মোবাইল চার্জে দিয়ে রাখবেন না

৬. সম্পূর্ণ রাতের জন্য মোবাইল চার্জে দিয়ে রাখবেন না

যদি আপনারা সঠিকভাবে নিয়ম মেনে চলেন তাহলে সম্পূর্ণ রাতের জন্য আপনারা আপনাদের মোবাইল চার্জে লাগিয়ে রাখবেন না যদি চার্জে লাগিয়ে রাখেন তাহলে এটি ব্যাটারির জন্য অনেক খারাপ 

একবার আপনারা ভেবে দেখুন যখন আপনাদের খিদে পায় তখন আপনারা যত টুকু খেতে পারবেন ততটুকুই ভাত খান

এবার যদি আপনাকে আপনার প্রয়োজনের থেকে বেশি ভাত খাওয়ানো হয় তাহলে সেই ক্ষেত্রে আপনার বদহজম হবে

ঠিক সেই ধরণের মোবাইলের ব্যাটারির ক্ষেত্রেও হয়

মোবাইলের ব্যাটারি তে যতটুকু পরিমাণ চার্জের প্রয়োজন তার থেকে বেশি পরিমাণে চার্জ বিলে স্বাভাবিকভাবে ব্যাটারীতে  খারাপ প্রভাব পড়বে এবং ব্যাটারি এবং চার্জের সাথে জড়িত বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেবে মোবাইলে

তাই যতটুকু প্রয়োজন ততটুকুই চার্জ দেওয়ার চেষ্টা করবেন

এছাড়া সম্পূর্ণ রাতের জন্য মোবাইল চার্জে বসিয়ে রাখবেন না

৭. আপনারা কি যেকোনো চার্জার বা পাওয়ার ব্যাংক ব্যবহার করবেন?

না, এটা কখনোই করবেন না যদি আপনারা আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাটারির মেয়াদ বাড়াতে চান

যদি আপনাদের কোন তারা থাকে বা আপনারা আপনার মোবাইলের চার্জার খুঁজে পাচ্ছেন না তখন আপনারা অন্য একটি ভালো চার্জার ব্যবহার করতে পারেন এটা স্বাভাবিক

তবে বেশি সময়ের জন্য কোন লো কোয়ালিটি মোবাইলের চার্জার এর ব্যবহার করলে আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারির সাংঘাতিক ক্ষতি হতে পারে

অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে যে কমদামি বা সস্তা চার্জার ব্যবহার করার ফলে অনেক মোবাইলের ব্যাটারি তে আগুন লেগে গিয়েছে

তাই যতটা সম্ভব চেষ্টা করবেন আপনারা যখন মোবাইল কিনে ছিলেন তখন যে কোম্পানির মোবাইল চার্জার আপনাদের দেওয়া হয়েছে সেই কোম্পানির মোবাইলের চার্জার ব্যবহার করার

আমি আপনাদের সর্বদাই পরামর্শ দেবো যদি আপনাদের চার্জার খারাপ হয়ে যায় তাহলে আপনারা যে কোম্পানির মোবাইল ব্যবহার করছেন সেই কোম্পানির মোবাইল সার্ভিস সেন্টারে গিয়ে একটি অরিজিনাল চার্জার কিনে নেবেন

মোবাইলের ব্যাটারি ভালো রাখার জন্য যদি আপনারা এই নিয়মগুলো মেনে চলেন তাহলে আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারির আয়ু ভালো থাকবে তাই আপনারা যথাসম্ভব চেষ্টা করবেন এই নিয়ম গুলি মেনে চলার

আমার শেষ কথা

আশা করছি বন্ধুরা আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের বিস্তারিত ভাবে বুঝাতে পেরেছি সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম আমাদের মধ্যে বেশির ভাগেরই মোবাইলে চার্জ এবং মোবাইলের ব্যাটারি সাথে জড়িত বিভিন্ন ধরনের সমস্যা রয়েছে তবে উপরের দেওয়া সাতটি নিয়ম মেনে যদি আপনারা আপনাদের মোবাইল চার্জ দেন তাহলে নিঃসন্দেহে আপনাদের মোবাইলের ব্যাটারি অনেক বেশি সময়ের জন্য ভালো থাকবে

এছাড়া আপনাদের মোবাইল চার্জের সাথে জড়িত অন্য কোন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন আপনাদের হতে হবে না

তাই মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম গুলি প্রয়োগ করুন এবং সর্বদা আপনাদের স্মার্টফোনের ব্যাটারি ভালো রাখুন ধন্যবাদ

6 thoughts on “সঠিকভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম – (ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় 2021)”

  1. আপনার ব্লগের থিম ডিজাইন অসাধারণ হয়েছে। দয়াকরে কি বলবেন আপনার থিমের নামটা কি? অথবা থিমের লিংকটা দিলে আরো ভালো হয়।
    অগ্রিম ধন্যবাদ…

      1. ভাইয়া থিমটা আপনার তৈরি নয়। কারণ এটা বিভিন্ন জায়গা ব্যবহার হচ্ছে। যেমন দেখুন-https://www.hindisahity.com

        দয়করে আপনার থিমের নামটা বললে ভালো হয়। কমেন্টে বলতে না চাইলে আমাকে মেইল করতে পারেন।

        ধন্যবাদ…

          1. একজন পাঠকের কমেন্ট খুব হালকাভাবে নিলেন। বলতে না চাইলে অন্তত এ ভাবে বলার প্রয়োজন ছিল না। Genesis শুধুমাত্র একটা থিম তৈরি করেনি। বলার ইচ্ছা থাকলে এ ভাবে না বলে সরাসরি আপনার থিমের নাম বলতে পারতেন।

            জাস্ট সেইম…

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Scroll to Top
Copy link