HTML কি? HTML এর ব্যবহার এবং কাজ?

এই আর্টিকেলটিতে আমরা জানব HTML কি? এই পৃথিবীতে প্রত্যেকটি মানুষের পয়সা রোজগার করার জন্য একটি মাধ্যমের প্রয়োজন হয় যার সাহায্যে তারা তাদের নিজেদের প্রয়োজনীয়তাকে পূরণ করতে পারে এবং তাদের স্বপ্ন পূরণ করতে পারে বিভিন্ন ব্যক্তি বিভিন্ন রকমের কাজ করেন যেমন কেউ নিজের ব্যবসা করেন আর কেউ কোন কোম্পানির হয়ে কাজ করেন কাজ যেমনই হোক বড় অথবা ছোট প্রত্যেকটি মানুষকে পরিশ্রম করে কাজ করতে হয় তখনই সেই মানুষটির সফলতা অর্জন করতে পারে ঠিক সেইভাবে একজন ব্লগার ইন্টারনেটের মাধ্যমে পরিশ্রম করে পয়সা রোজগার করেন

যেভাবে অন্যান্য কাজ করার জন্য পরিশ্রম আর মনোযোগ এর প্রয়োজন হয় ঠিক সেইভাবে ব্লগিং করার জন্য খুব পরিশ্রম করতে হয় ব্লগিং করার জন্য একজন মানুষের বেশী কিছুর প্রয়োজন নেই শুধুমাত্র একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ থাকলেই হবে আজ সেটিতে ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে আর ব্লগিং করার জন্য সব থেকে প্রয়োজনীয় জিনিস হল জ্ঞান ব্লগিং শুরু করার জন্য সবথেকে প্রথম জিনিস হলো তার নিজের একটি ওয়েবসাইট বানানো আর ওয়েবসাইট বানানোর জন্য কি প্রয়োজন? HTML এর জ্ঞান ভালো হবে থাকা প্রয়োজনীয় ব্লগিংয়ের দুনিয়াতে সফলতা পাওয়ার জন্য একজন ব্লগারের HTML এর জ্ঞান থাকা খুবই আবশ্যক

কিন্তু সবারই html এর সম্পূর্ণ হবে জ্ঞান থাকেনা আর যারা তাদের ক্যারিয়ার ব্লগিংয়ে শুরু করতে চান আর একজন সফল ব্লগার হতে চান তাদের এই সম্বন্ধে জ্ঞান থাকা খুবই আবশ্যক আজকের এই আর্টিকেলের আমি আপনাদের শেখাবো HTML কি? আর এটির প্রয়োজনীয়তা কি?

 

HTML কি?

HTML কি? HTML এর ব্যবহার এবং কাজ

তাহলে চলুন আমরা জেনে নিই HTML কি? Hypertext Markup Language কে আমরা ছোট ভাবে HTML বলি HTML একটি কম্পিউটারের ভাষা যেটির ব্যবহার ওয়েবসাইট বানানোর ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয় আরে এটিকে রূপ দিতে CSS এর ব্যবহার করা হয়ে থাকে এই ভাষাটি কম্পিউটারের অন্যান্য ভাষা যেমন C, C++, JAVA ইত্যাদি এর তুলনায় খুবই সহজ এটির ব্যবহার করা যে কোন ব্যাক্তি খুব সহজেই আর কম সময়ে এই ভাষাটি শিখে নিতে পারেন

HTML এর সাহায্যে ওয়েবসাইট তৈরি হয়ে যাবার পর সেই ওয়েবসাইটটিকে পৃথিবীর যেকোন মানুষ ইন্টারনেটের সাহায্যে দেখতে পারবে HTML এর খোঁজ Physicist Tim Berners-Lee করেছিলেন 1980 সালের Geneva তে HTMLএকটি প্ল্যাটফর্ম Independent language এটির ব্যবহার যে কোন প্লাটফর্মে ব্যবহার করা যেতে পারে যেমন Windows, Linux ইত্যাদি

HTML কোথায় ব্যবহৃত হয়?

HTML এর ব্যবহার করে ওয়েব পেজ বানানো খুবই সহজ এর জন্য আপনার দুটি জিনিসের প্রয়োজন প্রথমটি একটি সাধারণ টেক্সট এডিটর যেমন নোটপ্যাড যেখানে HTML এর কোড লিখা হয় আর দ্বিতীয় টি একটি ব্রাউজার যেমন ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার, গুগল ক্রোম, মজিলা ফায়ারফক্স ইত্যাদি যেখানে আপনার ওয়েবসাইটটি পরিচয় পাওয়া যায় আর যেখানে ইন্টারনেট ইউজার দেখতে পাবে HTML ছোট ছোট সিরিজ দিয়ে তৈরি হয় যেটিকে আমরা নোটপ্যাডে লিখি সেই সমস্ত ছোট কোড কে ট্যাগ্স বলা হয় HTML tagsব্রাউজার কে বলে দেয় সেই ট্যাগ টির মধ্যে লেখা’ এলিমেন্টস ওয়েবসাইটের কিভাবে আর কোথায় দেখানো হবে

HTMLএমন অনেক ট্যাগ প্রদান করে যেগুলি গ্রাফিক্স, ফন্ট সাইজ আর কালারের সাহায্যে আপনার ওয়েবসাইট টিকে একটি আকর্ষণীয় রূপ দিয়ে দেয় HTML কোড কে লিখার পর আপনার ডকুমেন্টস কে সেভ করতে হবে এটিকে সেভ করার জন্য html ফাইলের নামের সাথে .htm অথবা .html লিখা খুবই আবশ্যক. তাহলেই আপনার html ডকুমেন্টটি ব্রাউজারে দেখাবে নাহলে নয়

সেভ করার পরে আপনি আপনার html ডকুমেন্ট দেখার জন্য ব্রাউজার খুলতে হবে ওই ব্রাউজারটি আপনার html ফাইল টিকে রিড করবে আর আপনার সঠিকভাবে লেখা কোড কে ট্রান্সলেট করে সঠিকভাবে আপনার ওয়েবসাইটটি কে দেখাবে যেভাবে আপনি কোড লেখার সময় ভেবেছিলেন আপনার ওয়েব ব্রাউজার html ট্যাগ ওয়েবসাইটে দেখাবে না বরং আপনার ডকুমেন্ট টিকে সঠিকভাবে দেখানোর জন্য ওই ট্যাগের ব্যবহার করবে

 

HTML Tags কেমন হয়?

HTML কি হয়তো আপনারা এবার জেনে গেছেন চলুন এবারে আমরা এর কিছু বেসিক ট্যাগ সম্বন্ধে জেনে নি HTML tag অন্য টেক্সট এর তুলনায় সম্পূর্ণ আলাদা হয় এর সাহায্যে html কোড লেখা হয়ে থাকে HTML tags হল কীওয়ার্ডস যেটি আমরা বন্ধ ব্র্যাকেটের মধ্যে রাখি যেমন <html> tags এর সাহায্যে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে নতুন নতুন আমরা এখানে ইমেজেস, টেবিল, ইত্যাদি জিনিসের ব্যবহার করে ওয়েব পেজ বানাতে পারি

বিভিন্ন tags বিভিন্ন ধরনের কার্যনির্বাহী করে যখন আপনি আপনার html পেজটি ব্রাউজারের মাধ্যমে দেখেন তখন সেখানে সমস্ত tags দেখা যায় না শুধুমাত্র তাদের প্রভাব দেখা যায় HTML এ হাজারো tags আছে এগুলির ব্যবহার আমরা ওয়েবসাইট বানানোর ক্ষেত্রে কাজে লাগায় তাহলে চলুন আপনাদের কিছু এমন বিশেষ tags এর সম্বন্ধে বলব যাদের প্রয়োগ ওয়েবসাইট বানানোর ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ HTML এ কোডিং লেখা শুরু করার আগে কমেন্ট লিখা হয় যার সাহায্যে author বুঝতে পারে html পেজ কোন জিনিসের জন্য বানানো হয়েছে

কমেন্ট লিখা কোন আবশ্যক নয় এটি নির্ভর করে আপনি আপনার html ডকুমেন্টের জন্য কমেন্ট লিখতে চান কিনা HTML এ কমেন্ট <!”….”> এরমধ্যে লিখা হয় এই কমেন্টই আপনি ওয়েব ব্রাউজারে দেখতে পাবেন না

কমেন্ট লেখার পর সবথেকে প্রয়োজনীয় tag হল header tag যার ফলে আমরা html ডকুমেন্টের সম্বন্ধে জানতে পারি কমেন্ট tag বাদে বাকি যত html tags আছে সবারই start tag আর end tag আছে যেমন

<head>…………………….</head>

যদি আপনি একটি start tag লেখার পর end tag না লেখেন তাহলে সেই tag এর কাজ আপনার ব্রাউজারে দেখা যাবে না তাই end tag লেখা অত্যন্ত আবশ্যক HTML tags এর keyword case insensitive হয় এর অর্থ tag এর নাম বড় অক্ষর অথবা ছোট অক্ষরে লিখতে পারেন এটি সম্পূর্ণ আপনার উপর নির্ভর করে আপনি আপনার tag কিভাবে লিখতে চান head tag এর মাঝে আমি যে বিন্দু বিন্দু মাত্রাগুলো দিয়েছি এর অর্থ হলো আপনি ওইখানে যেকোনো টেক্সট লিখতে পারেন

Header tag এর মধ্যে title tag লিখা হয় যেটি আমাদের html পেজ এর title কে বোঝায় যেমন

<title>It is my first webpage</title>

যখন আমরা আমাদের html পেজটিকে ব্রাউজার এর মধ্যে দেখব তখন সেই টেক্সট ব্রাউজারের সবার উপরে title bar এর বাম দিকে দেখা যাবে

Title tag এর পর body tag লিখা হয় এই tag এরমধ্যে ওয়েবপেজকে আরো আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য যে সমস্ত tags হয় সেগুলির প্রয়োগ করা যেতে পারে যেমন

<body bgcolor=”red” text=”blue”>

Hello How are you?

</body>

এখানে bgcolor এর অর্থ হলো background color অর্থাৎ আপনার ওয়েবপেইজের ব্যাকগ্রাউন্ড এর রং লাল দেখাবে আর আমি এখানে যে text লিখেছি সেটি নীল রঙ দেখাবে ঠিক এই ভাবে আপনি অনেক tags এর ব্যবহার <body> tag এর মধ্যে করে আপনার ওয়েবপেজটিকে আরো সুন্দর করে তুলতে পারেন

আপনার html ডকুমেন্টটি অবশ্যই নিচে দেওয়া এর মত হতে হবে

<html>

<head>

<title>…………………</title>

</head>

<body>

<h1>—-</h1> এটিকে বলা হয় heading tag যেটি ছোট অক্ষরে দেখানো হয়

<p>………..</p> এটিকে বলা হয় paragraph tag এখানে আপনি paragraph লিখতে পারেন

<b>…………</b> এটিকে বলা হয় bold tag এটি আপনার লেখা text কে bold করবে

</body>

</html>

এরকম আরো অনেক tag আছে যেগুলি আপনি body tag এর মধ্যে লিখতে পারবেন সমস্ত tags এর সম্বন্ধে এখানে বলা সম্ভব নয় এইজন্য আমি শুধুমাত্র আপনাদের বেসিক কিছু tags সম্বন্ধে বললাম অন্য কোন পোস্টে আমি আপনাদের সমস্ত tags এর সম্বন্ধে ভালোভাবে বিস্তারে জানাবো

 

HTML কিভাবে শিখব?

বন্ধুরা আপনারা যদি ভেবে থাকেন html কে আপনারা আপনাদের নিজের ক্যারিয়ার বানাবেন তাহলে HTML শেখার অনেক মাধ্যম রয়েছে

যদি আপনারা ওয়েব ডেভলপমেন্ট বা HTML ভাষা শিখতে চান তাহলে অনেক ফ্রি মাধ্যম রয়েছে

শুধুমাত্র যদি তিন থেকে চার মাস মনোযোগ সহকারে শেখেন তাহলে আপনারা সহজেই HTML শিখে নিতে পারবেন

তবে সেটা সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনাদের ওপর যে আপনারা পড়ো তাড়াতাড়ি এই বিষয়গুলি বুঝে নিতে সক্ষম

নিচে কতগুলো মাধ্যম দেয়া হলো যেগুলোর মাধ্যমে আপনারা এইচটিএমএল শিখতে পারবেন

  • অনলাইন ইন্টারনেটের মাধ্যমে
  • ওয়েব ডিজাইনিং কোর্স করার মাধ্যমে
  • এইচটিএমএল শেখার বই এর মাধ্যমে
  • ইউটিউব এর ভিডিও এর মাধ্যমে
  • Udemy এর মাধ্যমে অনলাইনে শিখতে পারেন

আপনারা অতি সহজেই ইউটিউব বা যেকোনো অনলাইন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ওয়েব ডিজাইনিং বা HTML শিখে নিতে পারবেন

বর্তমান সময়ে ইন্টারনেটে সার্চ করলে যেকোনো বিষয়ে সম্পূর্ণ জ্ঞান অর্জন করা খুব একটা কঠিন কাজ নয়

যদি আপনারা প্রফেশনালভাবে সার্টিফিকেটের সহিত HTML এর কোর্স করতে চাইছেন তাহলে আমি আপনাদের বলবো আপনারা কোন ভালো ওয়েব ডিজাইনিং ইন্সটিটিউট থেকে কোর্সটি সম্পন্ন করুন

আমি আমার যে কোন ব্লক ডিজাইন করার জন্য বেসিক এইচটিএমএল এর শিক্ষা সম্পূর্ণ ইউটিউব এবং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে শিখেছি

এইচটিএমএল সহজ একটি ভাষা যেটা আপনারা অতি সহজেই শিখে যেতে পারবেন

 

আমার শেষ কথা

তাহলে আজ আমরা শিখলাম HTML কি? HTML এর ব্যবহার এবং কাজ সম্বন্ধে আর কিছু বেসিক tags সম্বন্ধে আমি আপনাদের আগেই বলেছি HTML কম্পিউটারের খুবই সহজ ভাষা এটি যে কেউ খুব সহজেই শিখতে পারবে আর একজন ব্লগার এর ক্ষেত্রে এটির জ্ঞান থাকা অত্যন্ত আবশ্যক যার ফলে সে তার ওয়েবসাইটটিকে ভালোভাবে ডিজাইন করতে পারে আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা HTML এর সম্বন্ধে ভালোভাবে জানতে পেরেছেন এছাড়াও যদি আপনাদের কোন ধরনের প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে আপনারা নিচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে অবশ্যই জিজ্ঞাসা করতে পারেন আমি আপনাদের উত্তর দেওয়া যথাযথ চেষ্টা করব

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top