ব্লগ কিভাবে লিখব

বন্ধুরা ব্লগিংয়ে সফল হওয়ার জন্য যতটা জরুরী কোয়ালিটি কনটেন্ট ততটাই জরুরি সেই কনটেন্ট কে SEO friendly বানানো

কোয়ালিটি কনটেন্ট থেকে ইউজার আপনার সাথে সর্বদাই জুড়তে চাই আর সেই কনটেন্ট কে seo friendly বানালে গুগলের ক্রলার এটি বুঝতে পারে যে আপনার পোস্ট কোন বিষয় সম্বন্ধে যাতে তারা তাদের সার্চ ইঞ্জিনে ওই পোস্টটির সম্বন্ধিত কিওয়ার্ড এ রেঙ্ক করাতে পারে

নতুন ব্লগার যারা তারা ব্লগকে ডিজাইন করার পর কনটেন্ট লেখা শুরু করে দেন কিন্তু সেই কনটেন্টকে SEO এর মোতাবেক অপটিমাইজ করেন না তাতে আপনার কনটেন্ট যত ভালো হোক না কেন সেটি rank কিভাবে করবে যতক্ষণ পর্যন্ত গুগলের ক্রলার ওই পোস্টটিকে বুঝতে না পারে যে ওই পোস্টটি কোন কিওয়ার্ডের ওপর লেখা হয়েছে

অথবা অনেক ব্লগার এরকম করেন পোস্টে শুধু কিওয়ার্ড আর কিওয়ার্ড জোর করে এড করে দেন আর তাদের কনটেন্ট এ কোয়ালিটি হয়না তাই গুগোল এই ধরনের কনটেন্ট কে উপরে rank পড়ায় না কারণ এটি ইউজারদের প্রশ্নের সঠিক জবাব ডিটেলসে দেওয়া থাকে না

এই জন্য আপনাকে আপনার ব্লগে কোয়ালিটি কনটেন্ট এর সাথে সেটিকে seo friendly বানানো খুবই জরুরী এই ধরনের ব্লগ কিভাবে লিখবেন আজ আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে জানবো

 

SEO friendly ব্লগ কিভাবে লিখব?

ব্লগ কিভাবে লিখব

এবার আমি আপনাদের দশটি পয়েন্ট এর কথা বলব যে আপনারা কিভাবে একটি SEO friendly ব্লগ লিখতে পারবেন যার ফলে আপনার পোষ্ট গুগলে টপ পেজে rank হয়ে যাবে

  • কিওয়ার্ড রিসার্চ

আপনার ব্লগের কোন পোস্ট লেখার আগে আপনাকে ঐ পোষ্টের জন্য কিওয়ার্ড কে ভালোভাবে রিচার্জ করতে হবে এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ process এদিকে অনেক ব্লগার এতটা ভালোভাবে নেন না কিন্তু SEO এর অর্ধেক কাজ কিওয়ার্ড রিসার্চের হয়

সর্বপ্রথম আপনি যে টপিকের উপর পোস্ট লিখবেন ভাবছেন যেমন ধরুন আপনি অনলাইন বিজনেস আইডিয়া এর সম্বন্ধে একটি পোষ্ট লিখতে চান তাহলে সর্বপ্রথম আপনার কাজ হবে আপনি গুগলে সার্চ বক্সে জানান সেখানে লিখুন online business ideas in bengali

এরপর আপনাকে এন্টার প্রেস করতে হবে না আপনি দেখবেন আপনি যে কি-ওয়ার্ড রিসার্চ বক্সে লিখেছেন তার নিচে কিছু suggestion দেখতে পাবেন এগুলো সব কি ওয়ার্ড এরপর আপনি এদের মধ্যে 5 থেকে 10 টি কিওয়ার্ড নোট করে নিন

এরপর আপনি এই নোট করা কিওয়ার্ড কে কোন কিওয়ার্ড রিসার্চ টুল যেমন semrush, ubersuggest, keyword tool অথবা keywords everywhere তে পেস্ট করুন আর দেখুন এই কী-ওয়ার্ড গুলির সার্চ ভোলিয়াম কত

অর্থাৎ মাসে কতবার মানুষ এই কী-ওয়ার্ড কে গুগলে সার্চ করে আর সাথে এই টুল গুলোর সাহায্যে আপনি এটিও জানতে পারবেন যে এই কী-ওয়ার্ড গুলির উপর কত বেশি কম্পিটিশন রয়েছে

যখন সার্চ ভলিয়াম বেশি হবে আর কম্পিটিশন কিছুটা কম হবে তখন এই কী-ওয়ার্ড কে আপনি আপনার মেইন কি ওয়ার্ড ধরে নিন আর ওই কিওয়ার্ডের সম্বন্ধিত চার থেকে পাঁচটি LSI কিওয়ার্ড আপনি সার্চ করে নিন এগুলো আপনি গুগল এ পেয়ে যাবেন

কিওয়ার্ড রিসার্চ পড়ার সাথে সাথে আপনাকে এটি দেখতে হবে যে কি-ওয়ার্ড আপনি সিলেক্ট করেছেন সেই কিওয়ার্ড সম্বন্ধিত অন্য সাইটের আর্টিকেল যেগুলো অলরেডি rank করছে তারা কিভাবে কনটেন্ট লিখেছেন

অর্থাৎ যেমন online business ideas in bengali এই কিওয়ার্ড টিতে যে পোস্টগুলো top এ rank রান করছে তারা  পাদের আর্টিকেলে কত ধরনের আইডিয়াস এর কথা বলেছেন আর সাথে কোন কোন পয়েন্ট এটির সম্বন্ধিত কভার করেছেন এইসব আপনাকে রিসার্চ করে রাখতে হবে

  • ব্লগ পোষ্টের structure তৈরি করুন

আপনি কোন আর্টিকেল কে যদি শুধু একটি হেডিং এর মধ্যে লিখে দেন তাহলে কেউ আপনার আর্টিকেলটি বুঝতে পারবে না

যখন কোন আর্টিকেল লেখা হয় তখন সেখানে অনেক পাঠ দ্য পয়েন্ট থাকে যেমন ধরুন online business idea in bengali এর ওপর যদি পোস্ট লেখা হয় তাহলে এখানে অনলাইন বিজনেস আইডিয়া এর সম্বন্ধে আমরা বলছি  তাই আমাদের সবগুলোকে আলাদা আলাদা সাব হেডিং এ লিখতে হবে

ব্লগ পোষ্টের structure আপনার পোস্টে লেখার আগে এটা ডিসাইড করতে হবে যে আপনি ঐ পোষ্টের মধ্যে কত পয়েন্ট  উল্লেখ করতে চাই

এছাড়া আপনার পোষ্টের প্রথম ফেরাতে কি কি রাখবেন মাঝখানে কি কি রাখবেন আর শেষে কি কি হবে এইসব আপনাদের structure তৈরি করতে হবে এর জন্য আপনাকে এইজন্য আপনাকে সেই সমস্ত আর্টিকেল দেখতে পারেন যেগুলো top এ rank করছে আর তারপর আপনি তাদের থেকে কত ভাল পোষ্টের structure তৈরি করতে পারবেন এটি আপনাকে ভাবতে হবে যাতে আপনি তাদের beat করতে পারেন

  • ব্লগ টাইটেল আর URL সেট করুন

যেকোনো ব্লগ পোস্টের টাইটেল attractive হওয়া খুবই জরুরী কারন সবার আগে আপনার টাইটেল কে দেখে আর আপনার ব্লগ পোস্টের টাইটেল ডিসাইড করে যে ইউজার আপনার পোস্টটি কে পড়বে কিনা

আর সাথে SEO এর point of view থেকে টাইটেল খুবই গুরুত্বপূর্ণ যেমন

যেটি আপনার মেইন কি ওয়ার্ড সেটি আপনার টাইটেল এ এড করুন

দ্বিতীয় টি আপনার টাইটেল 55-60 character এর মধ্যে রাখুন

আপনার ব্লগের আর্টিকেল কেমন হবে এটি আপনার টাইটেল পড়ে যেন বোঝা যায়

আপনার টাইটেল কি attractive বা cachy হওয়া খুবই জরুরী কারন গুগল তাদের SERP এ 10 টি রেজাল্ট show কড়াই সেখানে ইউজার আপনার পোষ্টের লিঙ্ক এ ক্লিক করবে যখন পাড়া আপনার টাইটেল কি interesting দেখবেন

টাইটেল এর পরে আছে URL এটি কেমন হবে এটি জানা আপনাদের জন্য খুবই জরুরী কারণ অনেক নতুন ব্লগার এই ভুলটি করে থাকেন আর আমি আপনাদের বলব পোষ্টের URL একটি গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর SEO এর ক্ষেত্রে

সর্বপ্রথম যখন আপনার ওয়ার্ডপ্রেস এ কোন পোস্ট লিখেন তখন বাই ডিফল্ট URL তৈরি হয়ে যায় এটিকে আপনাদের চেঞ্জ করতে হবে

দ্বিতীয় কথা হল আপনার URL short হতে হবে আর সেখানে আপনার মেন কিওয়ার্ড থাকতে হবে

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ কথা URL সম্বন্ধিত যদি আপনার পোস্ট পাবলিশ করার পর URL চেঞ্জ করেন তাহলে আপনাকে 301 redirect এর ব্যবহার করতে হবে

  • হেডিং সঠিকভাবে ব্যবহার করুন

একটি well-optimized ব্লগপোষ্ট সেটি হল যেখানে হেডিং সঠিকভাবে ব্যবহার করা হয় অনেক ব্লগার h2, h3 হেডিং কে ব্লগের যেকোন কোথাও ব্যবহার করেন যেটি একদম সঠিক নয় এতে আপনার ব্লগ rank করবে না

হেডিং এর ব্যবহার করার একটি সঠিক নিয়ম রয়েছে আর সেটি হল

সর্বপ্রথম যেটি আপনার ব্লগ পোস্টের টাইটেল সেটি h1 হেডিং এরমধ্যে হয় এছাড়া কখনোই আপনি h1 এর ব্যবহার করবেন না

এরপর যেটি আপনার মেন হেডিং হবে সেটি h2 এরমধ্যে হবে

এরপর যেটি মেন হেডিং এর মধ্যে আপনি সাবহেডিং ব্যবহার করেন সেটি কে h3 এর মধ্যে রাখুন

আপনার ব্লগ পোষ্টের structure এইভাবে হতে হবে – h1>h2>h3

আর যখন আপনি আপনার ব্লগ পোস্টে হেডিং এর সঠিক ব্যবহার করেন তখন গুগলের crawler এর কাজ অনেক বেশি সহজ হয়ে যায় আপনার পোস্ট কে crawl আর ইন্ডেক্স পড়তে এতে আপনার পোস্ট ranking এর chances বেড়ে যায়

  • ব্লগ পোষ্ট এর প্যারাগ্রাফ ছোট রাখুন

যখন আপনি এই ব্লগ পোষ্ট লিখবেন তখন সেখানে প্যারাগ্রাফ সর্বদা ছোট রাখবেন এতে ইউজার অনেক ভালোভাবে আপনার ব্লগ পোষ্ট টি বুঝতে পারবে কারণ এতে আপনার ব্লগ পোষ্ট অনেক বেশি পরিষ্কার হয়ে যাবে

সাথে যদি আপনি প্যারাগ্রাফ এ কোন কিওয়ার্ড বা কোন ওয়ার্ড কে নিয়ে বেশি focus করছেন তাহলে সেটিকে bold করুন কারণ এতে ইউজার এটি বুঝে যেতে পারে আর গুগলের crawler বুঝে যায় আপনি এই কী-ওয়ার্ড এর ওপর focus করেছেন

  • Internal linking অবশ্যই করুন

যখন আপনি কোন ব্লগ পোস্ট লিখবেন তখন সেখানে অন্য পোস্টের লিংক মাঝখানে অবশ্যই এড করবেন যেগুলো আপনি আগে থেকে লিখে রেখেছেন আর সেই ব্লগ পোস্ট গুলো আপনার নতুন পোস্টের সম্বন্ধিত হতে হবে

এই পদ্ধতি টিকে সাধারনত internal linking বলা হয় আর এটি SEO এর মোতাবেক একটি বড় ফ্যাক্টর ranking এর জন্য এটি আপনাকে অবশ্যই করতে হবে

যেমন ধরুন আমি একটি ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর পোস্ট লিখছি আর আমি আগে এসইও, কি ওয়ার্ড, ব্যাকলিংক এর ওপর পোস্ট আলাদাভাবে লিখে রেখেছি তাহলে আমাকে অবশ্যই সেই পোস্টকে আমার এই ডিজিটাল মার্কেটিং এর পোস্টে এড করতে হবে

কারণ এতে একটি positive sign যাই গুগলকে আর ইউজার কেউ যাতে তারা আমাদের ব্লগে অনেক সময় পর্যন্ত থাকতে পারে কারণ তারা ইনফর্মেশন পেতে যাচ্ছেন আর তারা একটি পেজ থেকে অনেক পেজ পর্যন্ত যেতে পারছে

  • কিওয়ার্ড কে প্রয়োজন হিসাবে ব্যবহার করুন কিওয়ার্ড stuffing করবেন না

অনেক ব্লগার এটি ভাবেন যে তারা তাদের পোস্টে কিওয়ার্ড করবেন তাদের ব্লগ তত তাড়াতাড়ি rank হয়ে যাবে তাই তারা তাদের পোস্টে এমন জায়গায় কিবোর্ড ব্যবহার করেন যেটির কোন sense থাকেনা

এটিকে আমরা সাধারনত keyword stuffing বলি আর গুগোল এটিকে একদমই পছন্দ করেনা যে আপনি জোর করে sentence এ কি ওয়ার্ড এর ব্যবহার করেন এটি আপনাদের করা উচিত নয়

আপনাকে naturally যেখানে কিওয়ার্ড ব্যবহার করা উচিত সেখানেই ব্যবহার করা ভালো আর প্রতি জায়গায় মেইন কি ওয়ার্ড নয় বরং ওই কিওয়ার্ড সম্বন্ধিত LSI কিওয়ার্ড ব্যবহার করা উচিত

এতে আপনার পোষ্টের SEO অনেক বেশি ইমপ্রুভ হয়ে যায় আর আপনার পোষ্টের মেইন কি ওয়ার্ড শুধু নয় বরং সেই সম্বন্ধিত অন্য কিওয়ার্ড এ গুগোল এ rank করে

  • ব্লগ পোষ্টের length কে অপটিমাইজ করুন

আমাদের পোষ্ট কত word এর হতে হবে যাতে গুগোল এ rank করে? আমাদের কি লম্বা পোস্ট লেখা উচিত এই সমস্ত প্রশ্ন বেশিরভাগ ব্লগারের মনে থাকে

দেখুন বন্ধুরা এরকম কিছু নয় আপনি বড় বড় পোস্ট লিখলেই আপনার ব্লগ rank করবে না হ্যাঁ আপনি যে টপিকের ওপর পোষ্ট লিখেছেন আপনি চেষ্টা করুন যাতে ইউজারের মনে যে যে প্রশ্নগুলো এই টপিকের সম্বন্ধিত রয়েছে আপনাকে সেই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর ভালোভাবে আপনার পোষ্টের মাধ্যমে দিতে হবে তাতে আপনার পোস্ট যত বেশি বড় হোক না কেন

কখনোই জোর করে পোস্টে ভুলভাল তথ্য দিয়ে বড় করার চেষ্টা করবেন না শুধু আপনাকে আপনার টপিক কে কিভাবে আপনি আপনার ইউজার দের ভালোভাবে বোঝাতে পারবেন আর কিভাবে ভাল তথ্য দিতে পারবেন এটি আপনাকে চেষ্টা করে যেতে হবে

  • Meta Description optimized করুন

যেকোনো ব্লগপোস্টে যতটা ভূমিকা আপনার ব্লগ পোস্টের টাইটেল আর URL এর হয় ততটাই জরুরী Meta description অর্থাৎ গুগলের SERP এ আপনার পোস্টের টাইটেল আর URL এর সাথে আপনার ব্লগ পোস্ট এর Meta description show হয় এটিকে গুগলের crawler অবশ্যই configure করে

Meta description কে নিয়ে গুগলের কিছু নিয়ম রয়েছে

আপনার ব্লগ পোস্টের মেটা 200 character এর মধ্যে হতে হবে আর সেখানে আপনাকে আপনার ব্লগ পোস্টের মেইন কি ওয়ার্ড অবশ্যই রাখতে হবে

  • Post Image কে অপটিমাইজ করে ব্যবহার করুন

আপনি আপনার ব্লগ পোস্টে যে সমস্ত ইমেজ ব্যবহার করেন আগে সেই ইমেজগুলো কে compress করুন অর্থাৎ যাতে ইমেজটি কম সাইজের হয় আপনি compress করার জন্য tiny.png কে ব্যবহার করতে পারেন এতে আপনার ব্লগের লোডিং স্পিড ঠিক থাকবে

আপনার ইমেজের ফাইল নেম হয় আর alt txt হয় সেখানে আপনাকে আপনার ব্লগ পোস্টের মেইন কি ওয়ার্ড কে রাখুন এতে আপনার পোষ্টের সাথে সাথে গুগোল এ আপনার পোষ্টের ইমেজ rank করবে

Note:- seotesteronline tool এর সাহায্যে আপনি এটা জানতে পারবেন আপনার ব্লগ পোস্ট seo friendly কিনা আর আপনাকে কি কি improvement করতে হবে

আমার শেষ কথা 

বন্ধুরা আশা করছি আমার এই পোস্টটি পড়ার পর আপনারা ভালোভাবে বুঝে গিয়েছেন ব্লগ কিভাবে লিখব আর কিভাবে লিখলে গুগল এ rank করবে আর ইউজার আমাদের সাথে জুড়বে

যদি আপনাদের এই পোষ্টের সম্বন্ধিত কোন ধরনের প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে আপনারা আমাকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন আমি আপনাদের উত্তর দেওয়ার যথাযথ প্রয়াস করব

আর যদি আপনারা ব্লগিং এসইও আর ডিজিটাল মার্কেটিং সম্বন্ধিত এই ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে চান তাহলে আমাদের এই ব্লগ টি. সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আর আজকের এই আর্টিকেলটি পড়ে যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনারা এই পোস্টটিকে আপনাদের সোশ্যাল মিডিয়াতে অবশ্যই শেয়ার করুন ধন্যবাদ 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Scroll to Top
Copy link