কিভাবে বুঝবেন, ব্লগিং আপনার জন্য উপযুক্ত হবে কিনা?

আপনি কি ব্লগিং করতে চান? যদি হ্যাঁ, তাহলে কি ব্লগিং আপনার জন্য উপযুক্ত হবে? আপনি একজন personal blogger বা একজন professional blogger হতে চান কিনা এই প্রশ্নগুলি আপনাদের নিজেদের করা উচিত  হয়তো আপনারা কোথাও শুনেছেন ব্লগিংয়ের মাধ্যমে মানুষেরা ভালো টাকা আয় করে আর তাই আপনারা এই লাইনে কাজ শুরু  করেছেন

কিভাবে বুঝবেন, ব্লগিং আপনার জন্য উপযুক্ত হবে কিনা?

তবে সত্যি বলতে, এটা যতটা সহজ মনে হয় বাস্তবে এটা এতটা সহজ নয় যদি আপনাদের ব্লগিং সম্বন্ধে কোনো ধারণা থেকে থাকে তাহলে আপনারা অবশ্যই জানবেন ঘরে বসে টাকা আয় করার এটি একটি খুবই ভাল মাধ্যম 

এমন অনেক মানুষ আছেন যারা এই বিষয়ে সম্পূর্ণ তথ্য না জেনেই তাদের ব্লগ শুরু করে দেন আর এই মাধ্যমে টাকা আয় করতে ব্যর্থ হন যদি আপনারা এই লাইনে আপনার ক্যারিয়ার বানাতে চান তাহলে শুরু করার আগে 100 বার ভাবুন আমি এখানে কয়েকটি পয়েন্ট সম্বন্ধে আলোচনা করেছি এগুলি আপনাকে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করবে ব্লগিং আপনার জন্য উপযুক্ত হবে কিনা

 

প্রফেশনাল ব্লগার কি করে?

যদি আপনাদের নিজস্ব কোন গল্প বা কোন বিষয়ে অভিজ্ঞতা থেকে থাকে তাহলে আপনারা ব্লগিংয়ের মাধ্যমে সেটি মানুষের সাথে শেয়ার করতে পারেন এদেরকে আমরা পার্সোনাল ব্লগার বলি উদাহরণস্বরূপ বলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনকে ধরুন

ইনার একটি ব্লগ রয়েছে সেখানে তিনি তার সম্বন্ধে আর তার অভিজ্ঞতা সম্বন্ধে শেয়ার করেন ব্লগিংয়ের মাধ্যমে টাকা আয় করার তার কোনো উদ্দেশ্য নেই এদের বলা হয় পার্সোনাল ব্লগার বা Hobby ব্লগার এরা কোনরকম পরিকল্পনা ছাড়াই যেকোনো বিষয়ে শেয়ার করেন যেগুলো তাদের পছন্দের 

কিন্তু একজন প্রফেশনাল ব্লগার একজন বিশেষজ্ঞ এদের কোনো একটি বিষয়ে ভাল অভিজ্ঞতা রয়েছে তাতে সেটি যেকোনো বিষয়ের ওপর হতে পারে যেমন technology, business, fashion, health, cooking ইত্যাদি

যদি আপনাদের কোন একটি বিষয়ে অন্যদের থেকে ভালো অভিজ্ঞতা থেকে থাকে তাহলে আপনারা সেই বিষয়ে বেশি তথ্য শেয়ার করতে পারবেন এমন যেন না হয় আপনারা যে বিষয়ের উপর লিখছেন সেই বিষয়ের basics আপনার জানা নেই আর যদি কেউ আপনাদের সেই বিষয়ে কোন প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করে তাহলে আপনারা তার উত্তর দিতে পারবেন না

হয়তো আপনারা দেখেছেন অনেকেই টেকনোলজি সম্বন্ধে লিখছেন তার তারা ভালো ফলাফল পাচ্ছেন এর অর্থ এই নয় যে আপনিও এই বিষয়ে লিখতে শুরু করে দেবেন আপনাদের সেই সমস্ত বিষয়ে শেয়ার করতে হবে যেগুলোতে আপনারা অভিজ্ঞ

আপনি কি লিখতে পছন্দ করেন?

যদি আপনি কোন বিষয়ে ভালো দক্ষতা অর্জন করে থাকেন এবং সেই বিষয়ে যদি আপনি ব্লগিং করেন আর আপনার সময়, অর্থ এবং কঠোর পরিশ্রম ব্যয় করেন তাহলে এর অর্থ এই নয় যে আপনি সফল হবেন

ব্লগিং এর জন্য কিছু জিনিসের হওয়া খুবই জরুরী, আর সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ হলো লেখা যদি আপনি লিখতে পছন্দ না করেন এবং আপনি ভাবছেন আস্তে আস্তে এটি আপনার অভ্যস্ত হয়ে যাবে তাহলে নিজেকে বোকা বানানো বন্ধ করুন এই আশ্চর্যজনক ঘটনা খুবই কম মানুষের সাথে ঘটে

আপনি চাইলে লেখার জন্য অন্য কাউকে নিয়োগ করতে পারেন তবে আস্তে আস্তে এটি আপনার কাছে বোঝা মনে হবে যদি আপনি লিখতে পছন্দ না করেন তাহলে আমার বিশ্বাস ব্লগিং আপনার জন্য সঠিক সিদ্ধান্ত হবে না

 

আপনার কি ধৈর্য আছে?

ব্লগিং কোন এক দিনের কাজ নয় বরং এটি একটি দীর্ঘ যাত্রা এখানে সফলতা পেতে সময় লাগে এখানে আপনাকে ভাল কনটেন্ট লিখতে হবে আর সাথে আপনার ব্লগকে ভালোভাবে ডিজাইন করতে হবে, আর আপনার জ্ঞান কে শেয়ার করতে হবে আর সাথে ইন্টারনেটের দুনিয়াতে প্রমোট করতে হবে

এই সমস্ত কাজ করার জন্য আপনার মধ্যে কঠোর পরিশ্রম, অধ্যবসায় এবং ধৈর্যের প্রয়োজন যদি আপনারা ভেবে থাকেন ব্লগ শুরু করার পরেই আপনি টাকা আয় করতে পারবেন তাহলে এটি ভুল কথা এর জন্য আপনাকে পুরো সততার সাথে কাজ করতে হবে প্রথমে টাকা আয় করার কথা ভাবা বন্ধ করে কঠোর পরিশ্রম করে যেতে হবে

যারা আপনার ব্লগ পড়েন তারা আপনার গ্রাহক যতক্ষণ পর্যন্ত তারা সন্তুষ্ট না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত আপনারা সফল হতে পারবেন না ব্লগিং এর একটি basic funda হল কখনোই নিজের জন্য লিখবেন না আপনার পাঠকদের জন্য লিখুন এমন কিছু লিখুন যাতে তাদের সাহায্য হয় আর যেটা তাদের পছন্দের হয় এতে আপনার দক্ষতার ওপর তাদের ভরসা হবে যার ফলে আপনারা ভালো ভিজিটর পাবেন আর আপনাদের ইনকাম ভালো হবে

আমার শেষ কথা

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেলটি কিভাবে বুঝবেন, ব্লগিং আপনার জন্য উপযুক্ত হবে কিনা পড়ার পর আপনাদের অবশ্যই ভাল লেগে থাকবে আমি সর্বদাই চেষ্টা করি আমার পাঠকদের সম্পূর্ণ তথ্য প্রদান করা যাতে তাদের ইন্টারনেটে অন্য কোন ওয়েবসাইটে যাবার প্রয়োজন না হয়

যদি আপনাদের মনের মধ্যে এই আর্টিকেলটি কিভাবে বুঝবেন ব্লগিং আপনার জন্য উপযুক্ত হবে কিনা সম্বন্ধিত কোন ধরনের প্রশ্ন থেকে থাকে বা যদি আপনাদের মনে হয় এই আর্টিকেলটিতে আরও কিছু যোগ করা উচিত ছিল তাহলে আপনারা নিজে দেওয়া কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে পারেন

যদি আপনাদের এই পোস্টটি ব্লগিং আপনাদের জন্য উপযুক্ত হবে কিনা পড়ার পর ভালো লেগে থাকে বা যদি আপনারা এই পোস্টটি পড়ার পর কিছু শিখে থাকেন তাহলে এই পোস্টটিকে আপনাদের সোশ্যাল মিডিয়ায় যেমন ফেসবুক, টুইটার আরো অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে শেয়ার করতে ভুলবেন না

বন্ধুরা আজকের এই পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Scroll to Top
Copy link