ডোমেইন নেম কি আর কিভাবে কাজ করে? ডোমেইনের প্রকার (Domain Name)

ডোমেইন নেম কি এই সম্বন্ধে একজন beginner এর জন্য জেনে রাখা খুবই জরুরি কারণ অনলাইন যদি আপনি অন্য কাজ করতে চান তাহলে এর জন্য আপনাকে ওয়েবসাইট বানাতে হবে আর এজন্য ডোমেইন নেম এর প্রয়োজন সবার আগে পড়বে

কিন্তু অনেক beginner ডোমেইন নেম আর ওয়েব হোস্টিং কে নিয়ে কনফিউজড থাকেন যদি আপনি নতুন ওয়েবসাইট আর ব্লগিং এর দুনিয়ায় পা রেখেছেন তাহলে আপনার জন্য ডোমেইন নেম আর ওয়েব হোস্টিং এই দুটো টেকনিক্যাল শব্দ মনে হবে আর আপনারা এগুলোর সম্বন্ধে বেশি কিছু বুঝতে পারবেন না যদি আপনি টেকনিক্যাল ব্যাকগ্রাউন্ডের না হয়ে থাকেন

কিন্তু আজকে এই পোস্টে আমি আপনাদের ডোমেইন নেম এর সম্বন্ধে পুরো বিস্তারিত ভাবে বলবো যাতে আপনি যখনই আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট বানাবেন তখন তার জন্য ভালো ডোমেইন নেম বেছে নিতে পারবে

 

ডোমেইন নেম কি?

ডোমেইন নেম কি আর কিভাবে কাজ করে? ডোমেইনের প্রকার (Domain Name)

ডোমেইন নেম আপনার এড্রেস যেটিকে মানুষ ব্রাউজার এর URL বারে টাইপ করে আপনার ওয়েবসাইট পর্যন্ত পৌঁছায়

সহজ ভাষায় বললে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ হলো আপনার ঘর আর ডোমেইন নেম হলো আপনার ঘর পর পৌঁছে পর্যন্ত পৌঁছানোর একটি এড্রেস

চলুন এবার এটির সম্বন্ধে ডিটেইলস জেনে নেওয়া যাক

ইন্টারনেট একটি বিশাল নেটওয়ার্ক গ্লোবাল নেটওয়ার্ক ক্যাবল এর মাধ্যমে সমস্ত কম্পিউটার থেকে পুরো পৃথিবীতে জোড়া আর এই নেটওয়ার্কের মাধ্যমে প্রত্যেক কম্পিউটার অন্য কোন কম্পিউটারের সাথে সঞ্চার স্থাপন করতে পারে

প্রত্যেক কম্পিউটারকে চেনার জন্য একটি IP Address দেওয়া হয় যেটি একটি নম্বরের সিরিয়াল এই কারণে আমরা ইন্টারনেট এ কম্পিউটার কে চিনতে পারি

একটি IP Address এরকম দেখায় – 66.429.77.1

কিন্তু এই ধরনের IP Address কে প্রত্যেকবার মনে রাখা কঠিন এবার আপনিও ভাবছেন আপনি কোন ওয়েবসাইট কে সার্চ করার জন্য বারবার আপনাকে এইভাবে I P Addressকে মনে রাখতে হবে এটি খুবই কঠিন

এই সমস্যার সমাধান হলো Domain Name

হ্যাঁ এটির সাহায্যে আপনি যেকোন ওয়েবসাইট এ যাওয়ার জন্য কোন লম্বা নম্বর নয় বরং শুধু একটি সহজ ডোমেইন নেম মনে রাখতে হবে যেমন bengalitech.info

ডোমেইন নেম কিভাবে কাজ করে?

যদি আমরা এটি বুঝতে চাই ডোমেইন নেম কিভাবে কাজ করে তাহলে আমাদের ব্রাউজারের মধ্যে যেতে হবে

যখন আপনি আপনার ওয়েব ব্রাউজারে একটি ডোমেইন নেম দেন তখন ব্রাউজার DNS বানানো গ্লোবাল নেটওয়ার্ক সার্ভার এ রিকোয়েস্ট পাঠায়

আর তারপর ওই সার্ভার সেই ডোমেইন নেম এর সাথে জড়িত Name Server কে খুঁজে আর তারপর সে রিকুয়েস্ট সেই Name Server কে পাঠাই

উদাহরণস্বরূপ: ধরে নিন আপনার ওয়েবসাইট Hostfizia সার্ভারে হোস্ট আছে তাহলেএই ক্ষেত্রে আপনার Name Server এমন হবে –

ns1.hostfizia.com

Ns2.hostfizia.com

এই Name Server আপনার হোস্টিং কোম্পানি দ্বারা managed কম্পিউটার আপনার হোস্টিং কোম্পানি আপনার রিকুয়েস্ট কে সেই কম্পিউটার বা ওয়েব সার্ভারে পৌঁছে দেয় যেখানে আপনার ওয়েবসাইট স্টোর আছে

এই কম্পিউটারকে ওয়েব সার্ভার বলা হয় সেখানে বিশেষ পদ্ধতিতে সফটওয়্যার ইন্সটল থাকে ওয়েব সার্ভার ওয়েবসাইটের সাথে জড়িত সমস্ত ওয়েবপেজ আর তার সাথে জড়িত সমস্ত তথ্য কে fetch করে

আর তারপর ওয়েব ব্রাউজার কে ডাটা পাঠিয়ে দেয় আর এই প্রসেসটি শুধু মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই হয়ে যায়

 

ডোমেইন নেম ওয়েবসাইট আর ওয়েব হোস্টিং এর থেকে আলাদা কিভাবে?

একটি ওয়েবসাইট HTML, website builder software, images ইত্যাদির সাথে বানানো

এটা আমি আপনাদের আগেই বলে দিয়েছি যে আপনার ঘরের এড্রেস হল ডোমেইন নেম আর ওয়েব হোস্টিং ধরে নিন আপনার সেই ঘর যেখানে আপনার ওয়েবসাইট থাকে

ওয়েব হোস্টিং অর্থাৎ একটি এমন কম্পিউটার যেখানে আপনার ওয়েবসাইটের ডাটা স্টোর থাকে

সেই সমস্ত কম্পিউটারকে ওয়েব সার্ভার বলা হয় যেগুলো ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি দ্বারা একটি সার্ভিস এর রূপে আপনাকে দেওয়া হয়

আর একটি ওয়েবসাইট বানানোর জন্য আপনার ডোমেইন নেম আর ওয়েব হোস্টিং দুটোরই প্রয়োজন পড়বে

আপনাকে এই কথাটি সবসময় খেয়াল রাখতে হবে যে এই দুটি আলাদা আলাদা সার্ভিস এগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ওয়েবসাইটের জন্য আর আপনি এগুলোকে বিভিন্ন বিভিন্ন কোম্পানি থেকে কিনতে পারেন আবার একটি কোম্পানি থেকেও কিনতে পারেন

কিন্তু যখন আপনি আলাদা আলাদা কোম্পানি থেকে ডোমেইন নেম আর ওয়েব হোস্টিং buy করবেন তখন আপনাকে এগুলোকে একে অপরের সাথে কানেক্ট করতে হবে এর জন্য খুবই সহজ প্রসেস রয়েছে আপনাকে শুধু আপনার হোস্টিং কোম্পানি দ্বারা দেওয়া Name Server কে আপনার ডোমেইন নেম একাউন্টের সেটিং এ গিয়ে পয়েন্ট করতে হবে

যদি আপনি একজন beginner হন তাহলে এটি পরামর্শ দেবো যে আপনারা একটি কোম্পানি থেকে ডোমেইন নেম আর ওয়েব হোস্টিং buy করুন যার ফলে আপনাকে এই দুটোকে কানেক্ট করার প্রয়োজন হবে না

আর এখন তো সমস্ত বড় বড় ওয়েব হোস্টিং সার্ভিস দেওয়া কোম্পানি ওয়ার্ডপ্রেসের জন্য আলাদাভাবে managed ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং দেয় যেখানে আপনি ডোমেইন ফ্রিতে পেয়ে যাবেন আর কিছু ক্লিক করার পর আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেসের ড্যাসবোর্ড এ যেতে পারবেন

 

ডোমেইন নেম এর প্রকার

ডোমেইন নেম আপনি বিভিন্ন ধরনের আলাদা আলাদা extensions পেয়ে যাবেন এগুলোর মধ্যে সবথেকে বেশি জনপ্রিয় হলো .com এগুলো ছাড়াও বাকি extensions আছে যেমন – .in, .org, .net, .info, .io ইত্যাদি কিন্তু বেশিরভাগ এক্সপার্ট মানুষ .com কেই recommend করেন

চলুন ডোমেইন নেম এর প্রকার সম্বন্ধে বিস্তারিত ভাবে জেনে নেওয়া যাক

Top Level Domains – TLD

Top Level Domains বা TLD generic domain extensions হয় যে Domain Name সিস্টেম এ higher level এ লিস্টেড হয়

যদিও হাজারো Top Level Domains রয়েছে কিন্তু যেগুলো সব থেকে বেশি জনপ্রিয় domain সেগুলো হলো – .com, .net, .org এগুলো ছাড়াও বাকি TLD .biz, .club, .info, .agency এত বেশি জনপ্রিয় নয় আর এগুলো কেনার জন্য আমি আপনাদের রেকমেন্ট করব না

Country Code Top Level Domains

এই ধরনের ডোমেইন কোন পার্টিকুলার country এর হিসাবে রাখা হয় এগুলোকে country two letter, ISO Code এর হিসাবে এদের নাম রাখা হয়

যদি আপনি কোন পার্টিকুলার country আইডিয়া কে টার্গেট করতে চান তাহলে এই প্রকারের ডোমেইন নিতে পারেন

.in – India

.US – United States

.br – Brazil

.Ch – china

Sponsored Top Level Domain

Sponsored Top Level Domain TLD এর ক্যাটাগরি এর মধ্যে পড়ে যখন আপনি কোন পার্টিকুলার কমিউনিটি যেমন এডুকেশন, গভারমেন্ট ওয়েবসাইট বানাচ্ছেন তখন আপনি এই ধরনের ডোমেইন নিতে পারেন

এই ধরনের domain হলো – .edu, .org এবং .gov

 

আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ বানানোর জন্য ডোমেইন নেম কিভাবে বেছে নিবেন?

এখনো পর্যন্ত প্রায় 350 মিলিয়ন ডোমেইন নেম রেজিস্টার হয়ে গিয়েছে আর প্রতিদিন হাজারো ডোমেইন নেম রেজিস্টার হচ্ছে

এইজন্য এখন নতুন ইউজারদের জন্য একটি ইউনিক আর ভালো ডোমেইন নেম নেওয়া অনেক বেশি কঠিন কাজ হয়ে গিয়েছে

এখানে আমি আপনাদের কিছু সাহায্যকারী টিপস দেব যেগুলো আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ডোমেইন নেম কেনার ক্ষেত্রে ফলো করা উচিত

  • সর্বপ্রথম আপনাকে এমন ডোমেইন নেম সিলেক্ট করতে হবে যেটিকে মনে রাখা খুবই সহজ যাতে সেটিকে সহজে প্রমোট করা যেতে পারে
  • আপনার ডোমেইন নেম ছোট রাখুন
  • আর ওই ডোমেইন নেম এর spelling সঠিক রাখুন যাতে সেটির pronounce ভালোভাবে করা যেতে পারে
  • ডোমেইন নেম এ নম্বর আর hyphens এর ব্যবহার করবেন না
  • ডোমেইন নেম এমন হতে হবে যেটি আপনার ওয়েবসাইটের টপিকের সম্বন্ধিত হয় যাতে কোন ভিজিটর পড়ার পর বুঝা যায় আপনার ওয়েবসাইটটি কোন niche এর সম্বন্ধিত

 

ডোমেইন নেম কোথা থেকে কিনব?

কিছু ভালো কোম্পানি আছে যারা ডোমেইন এর ভালো সুবিধা প্রদান করে আর সাথে সেগুলো অনেক বেশি জনপ্রিয়

  • Godaddy
  • Namecheap
  • Bigrock
  • Bluehost
  • ResellerClub
  • Hostgator India

 

ডোমেইন নেম কে নিয়ে কিছু জিজ্ঞাসা করা সাধারণ প্রশ্ন

ডোমেইন নেম কে নিয়ে মানুষের মনে অনেক ধরনের প্রশ্ন থাকে যেগুলো তারা জিজ্ঞাসা করতে থাকে বিশেষ করে যারা নতুন ব্লগার যারা নতুন ব্লগ বানাতে চান

Subdomain কি?

Subdomain সাধারণত main domain যেটি আপনার থাকে তার মধ্যে থাকে Subdomain Bengalitech.info এটি আমার main ডোমেইন নেম তাহলে এটির subdomain আমি নিতে পারি bangla.bengalitech.info

একবার যখন আপনি আপনার main domain কে রেজিস্টার করে নিবেন তারপর আপনি সেই ডোমেনের subdomain create করার পারমিশন পেয়ে যাবেন

subdomain কে সাধারনত তখনই ব্যবহার করা হয় যখন আপনি কোন main ওয়েবসাইটের মধ্যে আরেকটি ছোট ওয়েবসাইট বানাতে চান

যেমন কোন news ওয়েবসাইট যদি আলাদা ক্যাটাগরি বা আলাদা ভাষাতে ওয়েবসাইট বানাতে চাই তাহলে তার main domain এর ভিত্তিতে তার subdomain বানাতে পারে

আমি আমার ওয়েবসাইটকে অন্য ডোমেইন নেম এ move করতে পারি?

হ্যাঁ অবশ্যই আপনি আপনার ওয়েবসাইটকে অন্য কোন ডোমেইন নেম এ move করতে পারেন এর জন্য আপনাকে আপনার হোস্টিং সার্ভারে নতুন ডোমেইন নেম কে পয়েন্ট করতে হবে

যদিও এতে আপনার ওয়েবসাইটের রেংকিং এক কিছুটা পার্থক্য আছে কারণ গুগোল এটিকে ডুবলিকেট কনটেন্ট ভাবে কিন্তু আপনি redirect এর ব্যবহার করে এই প্রবলেম কে ঠিক করতে পারবেন

 

আমার শেষ কথা

বন্ধুরা আশা করছি আজকের এই পোস্ট টি পড়ার পর আপনারা ভালভাবেই বুঝে গিয়েছেন ডোমেইন নেম কি আর কিভাবে কাজ করে

যদি আপনাদের এই পোষ্টের সম্বন্ধিত কোন ধরনের মন্তব্য থাকে তাহলে আপনারা নিচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাবেন আমি আপনাদের উত্তর দেওয়ার যথাযথ চেষ্টা করব আর যদি আপনাদের মনে হয় এই পোস্টের মধ্যে আরও কিছু যোগ করা যেত তাহলে আপনারা সেটিও কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন

আর যদি আপনারা ভবিষ্যতে এই ধরনের সাহায্যকারী তথ্য পেতে চান তাহলে এই ব্লগ কে এখনি সাবস্ক্রাইভ করে রাখুন আর যদি আপনারা একজন নতুন ব্লগার হন আর যদি আপনারা ব্লগিং এসইও ডিজিটাল মার্কেটিং অনলাইন ইনকাম এই সম্বন্ধে তথ্য পেতে চান তাহলে এই ব্লগটি আপনাদের জন্য একদম সঠিক হবে

আশা করি আজকের এই পোস্ট টি পড়ার পর আপনাদের অনেক ভালো লেগেছে যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে এই পোস্টটিকে আপনাদের সোশ্যাল মিডিয়াতে অবশ্যই শেয়ার করুন ধন্যবাদ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top